1. admin@amarsylhetnews.com : admin2020 :
  2. zoshim98962@gmaiil.com : আমার সিলেট ডেস্ক : আমার সিলেট ডেস্ক
  3. amarsylhetnews@gmail.com : আমার সিলেট নিউজ : আমার সিলেট নিউজ
  4. editor@amarsylhetnews.com : Amar SylhetNews : Amar SylhetNews

    রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ০৩:২৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
বাহুবলের চলিতাতলা রাস্তায় পিচ করার নমুনা দুর্নীতিই একমাত্র কারণ দৈনিক খোলা চিঠির হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি হলেন সাংবাদিক নোমান ঈদের দিনে বিশেষ কিছু আমল ৪নং জয়চন্ডী ইউনিয়নবাসীসহ ৯নং ওয়ার্ড বাসীকে ঈদে ফিরতের শুভেচ্ছা জানালেন মেম্বার পদপ্রার্থী ফজলুল আউয়াল করোনায় বিপন্ন মানুষের মাঝে হবিগঞ্জ জেলা যুবলীগের উপহার সামগ্রী বিতরণ পবিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে চামারদানী ইউনিয়নবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা, বিশ্বনাথ উপজেলা শাখা গঠন সম্পন্ন হিতৈষী ফাউন্ডেশন চুনারুঘাট আয়োজনে ঈদ খাদ্যসামগ্রী বিতরণ মাধবপুরে শাহজাহানপুর ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার বিতরণ সাংবাদিক আকাশ আহমেদর ঈদ শুভেচ্ছা

গোয়াইনঘাটে সরকারি সার ও বীজ উদ্ধার

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ৬০ বার পড়া হয়েছে

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি: সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার পশ্চিম জাফলং ইউনিয়নের মাতুরতল বাজার থেকে সরকারি সার ও বীজ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) বিকেলে ৫ বস্তা এমওপি সার ৪ বস্তা ডিএফটি সার, ৫ বস্তা ধানের বিজ সহ দশ হাজার টাকা সম মূল্যের কৃষি পন্য উদ্ধার করেছে স্থানীয় জনতা।

খবর পেয়ে সরেজমিন পরিদর্শনে আসেন গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ফারুক আহমদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহমিলুর রহমান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুলতান আলী, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল আহাদ, পশ্চিম জাফলং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম, উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা আল জাবির, ইউপি সদস্য মুন্সী আব্দুল মুমিন, আবুল কালাম, ফারুক আহমদ, মাতুরতল বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

এসময় সরকারী বীজ ও সার ক্রয়ের অভিযোগে মাতুরতল বাজার খলিল বীজ ঘরের সত্ত্বাধীকারী খলিল আহমদ এর ছেলে রেজওয়ান আহমদ কে দুই হাজার টাকা জরিমানা এবং অভিযুক্ত আব্দুল আলীম সহ ১৫ জন কৃষক কে (কার্ডধারী) ইফতারের পর থানায় হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহমিলুর রহমান।

উল্লেখ্য, এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে সাধারণ মানুষের মধ্যে বিভিন্ন প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। মো.আব্দুর রহমান: লিখেছেন, ধন‍্যবাদ উপজেলা প্রশাসনকে। আমার একটাই দাবি সঠিক কৃষককে শার ও বীজ যাচাই বাছাই করে দেয়ার জ‍ন‍্যো অনুরোধ রইলো।

রুবেল আহমদ: লিখেছেন, অই দোকানে যারা বিক্রি করেছে তারা মোটেও দোষী নয়, আমার দৃষ্টিতে তারাই প্রকৃত দোষী যারা এইসব কৃষকদের কার্ড দিয়েছে বা পেতে সহযোগিতা করছে। যারা পাওয়ার উপযুক্ত তাদের কে না দিয়ে যাদের জমিজমা আছে কিন্তু সে নিজে কৃষিকাজ করে না তারা কার্ডধারী হলে তো বীজ বিক্রি করবেই।
সো, সেখানে হাত উচিৎ যারা ৫০০/১০০০ টাকার বিনিময়ে কার্ড বিক্রি করে।

মো ইকবল হোসেন লিখেছেন : প্রকৃত কৃষক বর্তমানে সার ও বীজ পায় না, কিছু অসাধু ব্যক্তি ও স্থানীয় ওয়ার্ড এর জনপ্রতিনীদির কারণে আজ এমন অবস্তা চলছে, সেই সাথে উপসহকারী কৃষি অফিসার এর ও দুর্বলতা ও অলসতা আছে। আশা করি আগামীতে প্রকৃত কৃষকগন তাদের ন্যায্য হিস্যায় সরকারী স্যার ও বীজ পাবে।ধন্যবাদ জানাই উপজেলা চেয়ারম্যান মহোদয় এবং উপজেলা নির্বাহীঅফিসার মহোদয় কে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর