1. admin@amarsylhetnews.com : admin2020 :
  2. zoshim98962@gmaiil.com : আমার সিলেট ডেস্ক : আমার সিলেট ডেস্ক
  3. amarsylhetnews@gmail.com : আমার সিলেট নিউজ : আমার সিলেট নিউজ
  4. editor@amarsylhetnews.com : Amar SylhetNews : Amar SylhetNews

    মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:১৭ অপরাহ্ন

হবিগঞ্জ-ইকরাম-সুজাতপুর সড়কের বেহাল অবস্থা ॥ সংস্কারের দাবিতে আজ পদযাত্রা

  • আপডেট সময় বুধবার, ৯ জুন, ২০২১
  • ১৩৭ বার পড়া হয়েছে

মঈন উদ্দিন আহমেদ, হবিগঞ্জ ॥ হবিগঞ্জ-ইকরাম-সুজাতপুর সড়কের পিচ উঠে এবং এজিং ভেঙ্গে স্থানে স্থানে গর্তের সৃষ্টি হলেও দীর্ঘদিন ধরে সড়কটি সংস্কার করা হচ্ছে না। দীর্ঘদিন যাবত সড়কটি বেহাল অবস্থায় পড়ে থাকায় জনগণকে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ঝুঁঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করায় সড়কটিতে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটে। এই সড়কে প্রতিদিন চলাচলকারী যানবাহনের শ্রমিক ও যাত্রীসাধারণ জরুরী ভিত্তিতে সড়ক সংস্কারের দাবী জানিয়ে আসলেও কোন ফল না পাওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন।

ভুক্তভোগীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বানিয়াচং উপজেলার মক্রমপুর, সুজাতপুর, মন্দরী, মুরাদপুর, পৈলারকান্দি ইউনিয়নসহ কিশোরগঞ্জ জেলার বিভিন্ন উপজেলার হাজার হাজার মানুষ প্রতিদিন এই সড়ক দিয়ে যানবাহনে চড়ে জীবনের ঝুঁঁকি নিয়ে হবিগঞ্জ, সিলেট, মৌলভীবাজারসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করছেন। ভাটি অঞ্চলের মানুষের যাতায়াতের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে বেহাল অবস্থা পড়ে থাকলেও এটি সংস্কার করা হচ্ছে না। ভুক্তভোগীরা বলেন, কেন এই সড়ক সংস্কার করা হচ্ছে না এই জবাব আমরা কার কাছ থেকে পাবো?
ওই রাস্তায় চলাচলকারীরা অবিলম্বে সড়কটি সংস্কারের দাবিতে ‘হবিগঞ্জ সম্মিলিত নাগরিক আন্দোলন’-এর ব্যানারে আজ বুধবার হবিগঞ্জ থেকে সুজাতপুর পর্যন্ত পদযাত্রা কর্মসূচী ঘোষণা করেছেন।
হবিগঞ্জ সম্মিলিত নাগরিক আন্দোলন-এর সদস্য সচিব ও জেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক আবু হেনা মোস্তফা কামাল জানান, ৯ জুন বেলা ২ টায় হবিগঞ্জ কামড়াপুর ব্রীজ পয়েন্ট থেকে পদযাত্রা শুরু করা হবে এবং সুজাতপুর গিয়ে শেষ করা হবে। এরমধ্যে যতগুলো বাজার রয়েছে সবগুলো বাজারে পথসভা অনুষ্ঠিত হবে।
হবিগঞ্জ সম্মিলিত নাগরিক আন্দোলন-এর আহবায়ক ও জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক পীযূষ চক্রবর্তী জানান, পদযাত্রা কর্মসূচী থেকে সড়ক সংস্কারের জন্য কর্তৃপক্ষকে আল্টিমেটাম (সময়সীমা) দেওয়া হবে। জনগণের কষ্ট দূর করতে দ্রুত সড়ক সংস্কার করা না হলে পরবর্তীতে কঠোর কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে। আশাকরি কর্তৃপক্ষ কঠোর কর্মসূচী দিতে জনগনকে বাধ্য করবেন না। দ্রুত সড়ক সংস্কারকাজ শুরু করে গণদাবির প্রতি সম্মান দেখাবেন।
এ ব্যাপারে এলজিইডি’র বানিয়াচং উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার মিনারুল ইসলামের বক্তব্য জানতে তার মুঠোফোনে কল দিয়েও সাড়া পাওয়া যায়নি।
এলজিইডি বানিয়াচং উপজেলা অফিসের অফিস সহকারী কামরুল হাসানের মুঠোফোনে কল দিলে তিনি বলেন, স্যার অসুস্থ। ডাক্তার দেখানোর জন্য ঢাকায় যাবার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। সড়ক সংস্কারের জন্য টেন্ডার আহ্বান করা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে কামরুল হাসান বলেন, সড়কটির মেনটেইনেন্স করা হয়ে থাকে নির্বাহী প্রকৌশলীর অফিস থেকে। সড়কটির দৈর্ঘ্য কত কিলোমিটার জানতে চাইলে তিনি জানান, প্রায় ১৫ কিলোমিটার।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর