সংবাদ শিরোনাম ::
হবিগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যানসহ চার নেতাকে আ’লীগ থেকে অব্যাহতি ইনাতগঞ্জে শালিস বৈঠকে পরিকল্পিত হামলা নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতিসহ ৫জন আহত লাখাইয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণ চুনারুঘাট যুব এসোসিয়েশনের ঈদ পূর্ণমিলনী ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ তাহিরপুরে প্লাবিত হয়ে প্রায় অর্ধশত গ্রাম যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন বাহুবল৭নং ভাদেশ্বর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় সভাপতি নির্বাচিত বশির বাহুবলে পুটিজুরী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগেরত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিল অনুষ্ঠিত মাদক ও জুয়ার বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সের ঘোষনা মধ্যনগর থানার ওসি জাহিদুল হক দোয়ারাবাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যু

প্রবাসী মুক্তিযুদ্ধা স্বীকৃতি প্রসঙ্গে কিছু কথা

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১ জুলাই, ২০২১
  • ৪০০ বার পড়া হয়েছে

প্রবাসী মুক্তিযুদ্ধা স্বীকৃতি প্রসঙ্গে কিছু কথা….

মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে বিলেত (যুক্তরাজ্য) প্রবাসীদের সংগঠিত করে যারা বিভিন্ন কর্মসূচি, তহবিল সংগ্রহ, এমনকি স্থানীয় পাকিস্তানিদের হামলার মুখে পড়েছেন, কেউ কেউ কারাবরণও করেছেন। কিন্তু সদ্যঘোষিত প্রবাসী মুক্তিযুদ্ধার তালিকায় স্থান পাননি তাদের কেউই। ফলে স্বাধীনতার দীর্ঘকাল পর এধর‌নের খ‌ণ্ডিত ও অসম্পূর্ণ তা‌লিকা প্রকাশ নিয়ে বিলেতে বাঙ্গালী কমিউনিটিতে চরম হতাশা তৈরি হয়েছে। যারা ঘোষিত তালিকায় স্থান পেয়েছেন তাদের এই সম্মান অবশ্যই পাওয়া উচিৎ, মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে প্রবাসে (যুক্তরাজ্যে) তাদের এই অসামান্য অবদানকে আমি সম্মান জানাই। কিন্তু দুঃখ লাগে যখন সক্রিয় ভূমিকা পালন করেও যদি কেউ মূল্যায়ন না পান। তালিকায় না থাকা এমনই একজন হচ্ছেন ‘জমশেদ মিয়া’। যুক্তরাজ্য বাঙ্গালী কমিউনিটির সুপরিচিত মুখ, ১৯৭১ সালে গঠিত বার্মিংহাম আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সহ-সভাপতি, বঙ্গবন্ধু যুক্তরাজ্যে অবস্থানকালে যাদেরকে যুক্তরাজ্যে বাঙ্গালী কমিউনিটি দ্বারা অ্যাকশন কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছিলেন ‘জমশেদ মিয়া’ তাদের অন্যতম। বিলেতে বঙ্গবন্ধুর সহচর হিসেবে সুপরিচিত ছিলেন মরহুম ‘জমশেদ মিয়া’। সেই ‘জমশেদ মিয়া’ স্থান পাননি প্রবাসী মুক্তিযুদ্ধাদের তালিকায়, বাদ পড়েছেন তিনি, শুধু তিনি নয় তাহার মতো অসংখ্য প্রবাসী মুক্তিযুদ্ধা বাদ পড়েছেন সে তালিকা থেকে।
বাদ পড়াদের প্রসঙ্গে বা‌র্মিংহা‌মে ২৮ শে মার্চ ১৯৭১ উদযাপন প‌রিষ‌দের সভা‌পতি সা‌বেক হাইক‌মিশনার তোজা‌ম্মেল হক ট‌নি তার এক সাক্ষাৎকারে ব‌লেন, ইতিহা‌সে বার বার স্বীকৃত মহান মু‌ক্তিযুদ্ধের প্রবাসী সংগঠক‌দের এ‌ড়ি‌য়ে যাওয়া হ‌য়ে‌ছে প্রবল অব‌হেলায়, নিদারুণ লজ্জাকরভা‌বে। মু‌ক্তিযু‌দ্ধের একজন সংগঠক হি‌সে‌বে আমি আহত, দুঃখিত এবং ক্ষুব্ধ। ব্রিটে‌নের বাংলা‌দেশি ক‌মিউনি‌টি‌তে গত ৪০ বছ‌রের বে‌শি সময় ধ‌রে বসবাস কর‌ছেন লেখক ড. রেনু লুৎফা। তিনি তার এক আর্টিকেলে লিখেন, কবীর চৌধুরী, আতা খান, বার্মিংহা‌মের ট‌নি হক, লুলু বিল‌কিস বানু, আফ‌রোজ মিয়া, খলিলুর রহমান, সবুর চৌধুরী, ‘জম‌শেদ মিয়া’, সৈয়দ আবদুর রহমান, ওয়া‌তির আলী মাস্টার, শাহ নুরুল ইসলাম, ক‌ভেন্ট্রির সিতু মিয়ার ম‌তো সংগঠক‌দের নাম প্রবাসী মুক্তিযুদ্ধাদের তা‌লিকায় না দে‌খে বি‌স্মিত ও হতাশ হ‌য়ে‌ছি‌। ‘জমশেদ মিয়া’র মুক্তিযুদ্ধে অবদান সম্পর্কে যুক্তরাজ্য প্রবাসী অনেক লেখক তাদের গ্রন্থে উল্লেখ করেছেন, লেখক জনাব ফারুক আহমদ এর ‘বিলেতে বাংলার রাজনীতি’, লেখক জনাব ইউসুফ চৌধুরী’র‘একাত্তরে বিলেত-প্রবাসী’ নামক গ্রন্থ সহ বহু গ্রন্থে উল্লেখ হয়েছে, প্রবাসী মুক্তিযুদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি প্রাপ্ত জনাব এম, এ রউফ এর মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক অনেক গ্রন্থেও ‘জমশেদ মিয়ার’র গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথা উল্লেখ আছে।
যারা প্রবাসী মুক্তিযুদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছেন তাদের প্রতি আমার হাজারো শ্রদ্ধা, পাশাপাশি যারা তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন তাদেরকে প্রবাসী মুক্তিযুদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান ও যারা ইতিমধ্যেই মারা গেছেন তাদেরকে মরণোত্তর স্বীকৃতি প্রদানের জন্য সরকারের কাছে দাবী জানাচ্ছি।

লেখকঃ জাহাঙ্গীর হোসাইন চৌধুরী,
সাংবাদিক ও সমাজকর্মী

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর