1. admin@amarsylhetnews.com : admin2020 :
  2. zoshim98962@gmaiil.com : আমার সিলেট ডেস্ক : আমার সিলেট ডেস্ক
  3. amarsylhetnews@gmail.com : আমার সিলেট নিউজ : আমার সিলেট নিউজ
  4. editor@amarsylhetnews.com : Amar SylhetNews : Amar SylhetNews

    শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ০৭:১৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

  • আপডেট সময় রবিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ৩০০ বার পড়া হয়েছে

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

গত ২৮ নভেম্বর ২০২০ তারিখে কয়েকটি অনলাইন পত্রিকায় ” সুনামগঞ্জের সুনই নদী জলমহালে অবৈধ দখলদারদের অপতৎপরতায় ইজারাদাররা অতিষ্ট”এই শিরোনামে একটি প্রকাশিত সংবাদ হয়।
সংবাদে উল্লেখ করা হয় যে, সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার মনাই নদী প্রকাশিত সুনই নদী জলমহালে অবৈধ দখলদারদের অপতৎপরতায় ইজারাদাররা অতিষ্ট । ধর্মপাশা উপজেলা চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন রোকন এর নেতৃত্বে ইজারাকৃত জলমহাল অবৈধ ভোগদখল ও ইজারাদার মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির লোকজনের উপর হামলা ও জখম। অবৈধ ভাবে ৪টি ইঞ্জিন চালিত নৌকা রেখে সুনই জলমহালে নিয়মিত ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে এবং গত ২৯/১০/২০২০ইং তারিখে আবেদনকারী মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির লোকজনকে মারধোর করে জখম করেছে। সে সাথে কারেন্ট জাল ও কোনাজাল দিয়ে লীজকৃত জলমহালের মাছ লুটপাট করে নিয়ে যাচ্ছে।
সংবাদে উল্লেখিত প্রতিটি তথ্যই মিথ্যে, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। সুনুই জলমহাল অবৈধ ভোগদখল ও ইজারাদার মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির লোকজনের উপর হামলার ও মাছ লুটপাটের অভিযোগ মিথ্য ও ভূয়া এবং বানোয়াট । সুনই মৎস্যজীবী সমবায় সমিতি সভাপতি সুবল চন্দ্র
আদালতের নির্দেশে ১৪২৭ বাংলার ৩১ লাখ ৭৯ হাজার টাকা মূল্যে এক বছরের জন্য এটি ইজার মূল্য পরিশোধ করেন। ৪ ফেব্রুয়ারি জলমহালটির দখলনামা বুঝে নেন বলে আমাকে জানিয়ে সমিতির সভাপতি সুবল চন্দ্র বর্মন। আমার চৌদ্দগুষ্টির কেউ মাছের ব্যবসা করে না। জলমহাল ইজারা এবং দেখাশোনার দায়িত্ব সরকারের। অনিয়ম হলেও ব্যবস্থা নেবে সরকার।
একটি কুচক্রী মহল আমাকে রাজনৈতিক ভাবে হেয়প্রতিপন্ন এবং সমাজে ক্ষতিগ্রস্থ করতে এমন মিথ্যা ওবং ভূয়া ও বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রদান করে সংবাদ পরিবেশন করিয়েছে। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।
অপরদিকে সুনই মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সভাপতি ও ইজারদার সুবল চন্দ্র বর্মন বলেন, উচ্চ আদালতের নির্দেশে সমিতির পক্ষ থেকে গত ৩ জুন ২০২০ সালে জলমহালটির ইজারা মূল্য বাবদ ৩১ লাখ ৭৯ হাজার টাকা পরিশোধ করেও এবং হাইকোর্টের নির্দেশেনা থাকা অবস্থায় রাখাব উদ্দিন ও সাধন বাবুর নেতৃত্বে একটি চক্র জলমহল দখলের চেষ্টার করে আসছে। সেই সঙ্গে নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ ও বারহাট্টা উপজেলার থেকে সাধন বাবুর পক্ষ ক্যাডার বাহিনীর নিয়ে এসে আমাদের লোকজনদেনকে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভতি ও হুমকিদেখাচ্ছে। আমরা দফায় দফায় ডিসি স্যার ও ইউএনও স্যারের কাছে অভিযোগ দিয়েছি, কিন্তু প্রশাসন কোনো উদ্যোগ নিচ্ছে না। এবং আমি সুনই জলমহালে বৈধ ইজারাদার এবং মিথ্যা ও ভূয়া ও বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রদান করে সংবাদ পরিবেশন করিয়েছে। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

মোজাম্মেল হোসেন রোকন
চেয়ারম্যান
ধর্মপাশা উপজেলা পরিষদ
ধর্মপাশা সুনামগঞ্জ,

সুবল চন্দ্র বর্মন
সুনই মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সভাপতি
ধর্মপাশা সুনামগঞ্জ।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর